পুলিশ খুঁজে না পেলেও আসামি মিছিলে !

ময়মনসিংহের নান্দাইলে ১০ টাকা কেজি দরের চাল হতদরিদ্রদের মাঝে বিক্রি না করে আত্মসাৎ করার অভিযোগে মামলা হলেও পুলিশ গত ১৮ দিনেও অভিযুক্ত ডিলারকে ধরতে পারেনি। অথচ অভিযুক্ত ডিলার প্রকাশে থাকা ছাড়াও দলীয় একটি মিছিলের অগ্রভাগে ছিলেন। আর পুলিশ বলছে তাকে খুঁজে পেলেই গ্রেপ্তার করা হবে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলায় খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি আওতায় সদর ইউনিয়নে ডিলার নিযুক্ত হন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নুরুল্লাহ। গত সেপ্টেম্বর মাসের বরাদ্দ নামকাওয়াস্তে দিয়ে সিংহভাগ চাল কালোবাজারে বিক্রির উদ্দেশ্যে মজুদ করে রাখে। এ খবর পাওয়ার পর গত ১৯ সেপ্টেম্বর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তামিম আল-ইয়ামিন ঘটনাস্থলে গিয়ে ডিলারের গুদামের তালা ভেঙে ৪৫ বস্তা ( প্রতি বস্তা ৫০ কেজি) চাল উদ্ধার করেন। এ সময় ডিলার পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ উদ্ধারকৃত চাল থানায় নিয়ে যায়। এ ঘটনায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হয় নুরুল্লাহকে আসামি করে। ঘটনাটি নিয়ে ব্যাপক আলোচনা চললেও পুলিশ অভিযুক্ত নুরুল্লাহকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পরিদর্শক (তদন্ত) মো. খলিলুর রহমান জানান, তাকে খোঁজা হচ্ছে এতে কোনো সন্দেহ নেই। এখন যেকোনো সময় তাকে ধরা হবে।

kalerkantho

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।