ফ্রি’তে ফরম পূরণ না করায় দুই শিক্ষককে পেটালো যুবলীগ নেতা

বগুড়ার শেরপুরে বিনা টাকায় এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণে রাজি না হওয়ায় দুই শিক্ষককে পেটালেন এক যুবলীগ নেতা। পরে তাদের উদ্ধার করে শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আজ সোমবার দুপুরে উপজেলার ভবানীপুর হাইস্কুলে এ ঘটনা ঘটে। হামলার শিকার দুই শিক্ষক হলেন- ভবানীপুর হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক মোখলেছুর রহমান ও সহকারী শিক্ষক আমিরুল ইসলাম। আহত মোখলেছুর রহমান জানান, স্কুলের অফিস কক্ষে বসে এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের কাজ করছিলেন। এ সময় ভবানীপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি রামকৃষ্ণ টাকা ছাড়াই এক পরীক্ষার্থীর ফরম পূরণের দাবি করেন। কিন্তু তার আগেই ওই পরীক্ষার্থীর মা স্কুল পরিচালনা কমিটির সদস্য সবিতা রানী এক হাজার টাকায় ফরম পূরণ করে যান।

বিষয়টি যুবলীগ নেতাকে জানানো হলে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন ও ওই টাকা ফেরত চান। প্রধান শিক্ষক আরও জানান, ওই টাকা ফেরত দিতে দেরি হওয়ায় যুবলীগ নেতা রামকৃষ্ণ অতর্কিত অফিস কক্ষে হামলা চালায়। অফিসের কম্পিউটার ও চেয়ার-টেবিল ভাঙচুর করে নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয়। গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র ছিঁড়ে ফেলেন। এ সময় সহকারী প্রধান শিক্ষক আমিরুল ইসলাম এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধারের চেষ্টা করলে তাকেও বেধড়ক পেটায় ওই যুবলীগ নেতা। এ বিষয়ে অভিযুক্ত ভবানীপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি রামকৃষ্ণের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। শেরপুর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি তারিকুল ইসলাম তারেক জানান, যুবলীগ নেতা রামকৃষ্ণ এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়ে থাকলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। শেরপুর থানার এসআই আব্দুল মজিদ জানান, এ ধরনের ঘটনা জানা নেই। তবে অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আমাদের সময়

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।