মিয়ানমার সীমান্তে স্থল মাইন বিস্ফোরণে তিন বাংলাদেশি আহত

বান্দরবান-মিয়ানমার সীমান্তের ওপারে বড়থলি এলাকায় স্থল মাইন বিস্ফোরণে তিন গ্রামবাসী আহত হযেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। শনিবার রাতে মিয়ানমার সীমান্তের ওপারে জারুলছড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতেরা হলেন রাঙ্গামাটি জেলার জারুলছড়ি পাড়ার রিংরাও ¤্রাে (৪২), বান্দরবানের ২নম্বর রুমা সদর ইউনিয়নের খোলাইন পাড়ার অংলেই খুমী (৫৩) ও একই ইউনিয়নের বাসিন্দা প্রংফুংমক পাড়ার অংনে খমী (৩০)। আহতদের রোববার রুমা উপজেলা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য আনা হয়েছে বলে জানা গেছে।

আহতদের মধ্যে স্থল মাইনের স্পিøন্টারের আঘাতে অংলে খুমীর বাম পায়ের কব্জি উড়ে গেছে বলে জানিয়েছেন গুরুতর আহত অংলে খুমীর ভাতিজা লেলুং খুমী।

রাঙ্গামাটির ৪নম্বর বড়থলি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আতোমং মারমা জানান, আহত তিনজন শনিবার রাঙ্গামাটির বিলাইছড়ি উপজেলার বড়থলি ইউনিয়নের জারুলছড়ি মিয়ানমার সীমান্ত এলাকায় পাহাড়ি গয়াল (টং গরু) খুঁজতে গেলে সেখানে মিয়ানমার বিদ্রোহী গ্রুপের পুঁতে রাখা স্থল মাইন এর বিস্ফোরণে আহত হন। তাদের উদ্ধার করে প্রথমে পাশ্ববর্তী বান্দরবানের রুমা উপজেলার সুংসং পাড়া সেনাবাহিনীর ক্যাম্পে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসা হয়। পরে তাদের অবস্থার অবনতি হলে রোববার রাতে রুমা উপজেলা সদর হাসপাতালে আনা হয়েছে।

রুমা থানার ভারপ্রাপ্ত কমৃকর্তা (ওসি) মোঃ শরীফুল ইসলাম জানান, মিয়ানমার সীমান্তের ভিতরে গহীণ অরণ্যে স্থল মাইন কিনা জানিনা, তবে গ্রেনেড জাতীয় কোন কিছু বিস্ফোরণে তিনজন আহত হওয়ার খবর নিশ্চিত হয়েছে। আহতদের চিকিৎসার জন্য রুমা সদর হাসপাতালে আনা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বছর ২১ জুলাই বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার আশারতলী সীমান্ত এলাকায় পুঁেত রাখা ১২টি স্থল মাইন উদ্ধার করে বিজিবি’র একটি বোমা বিশেষজ্ঞ দল।

ছবির ক্যাপশান ঃ রুমা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন স্থল মাইন বিস্ফোণের আঘাতে আহত অংলেই খুমী।

ক্যমুই অং মারমা বান্দরবান প্রতিনিধি

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।