ধর্ষণ চেষ্টায় আমতলী উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি গ্রেফতার !

পিরোজপুর প্রতিনিধি : পিরোজপুরে এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে বরগুনা জেলার আমতলী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো: নুরুজ্জামান কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার গভীর রাতে পিরোজপুর সদর থানার পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে শহরের পদ্মা আবাসিক হোটেল থেকে গ্রেফতার করে ।এ সময় তার এক সহযোগী পালিয়ে যায়। থানা সূত্রে জানাযায়, বরগুনার আমতলী উপজেলার চড়কগাছা গ্রামের জলিল মাস্টারের ছেলে ছাত্রলীগ কর্মী জাহিদের সাথে ঝালকাঠী জেলার নলসিটি উপজেলার এক স্কুল ছাত্রীর সাথে মোবাইলে পরিচয় হয়।

পরে মঙ্গলবার জাহিদ ও আমতলী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো: নুরুজ্জামান স্কুল ছাত্রীর সাথে দেখা করার জন্য নলসিটিতে আসে। এক পর্যায় তাকে নিয়ে বেড়াতে যাবে বলে স্কুল ছাত্রীকে মোটরসাইকেলে উঠিয়ে পিরোজপুরে নিয়ে আসে। পরে সন্ধ্যা হয়ে গেলে রাতে বরগুনা যাওয়া যাবে না বলে পিরোজপুর শহরের একটি আবাসিক হোটেলে ওঠে। পরে হোটেল রুমে স্কুল ছাত্রীকে তারা দুই জনে ধর্ষণ করার চেষ্টা করলে কৌশলে স্কুল ছাত্রী হোটেলের রুম থেকে দৌড়ে বের হয়ে পাশে^র্র একটি বাড়িতে গিয়ে বিস্তারিত বললে তারা স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

পরে পুলিশ স্কুল ছাত্রীর কাছে ঘটনার বর্ণনা জেনে রাতেই সদর থানার ওসি (তদন্ত) হাচনাইন পারভেজ ও এসআই বিপ্লব কান্তি মন্ডল অভিযান চালিয়ে পদ্মা হোটেল থেকে আমতলী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো: নুরুজ্জামানকে গ্রেফতার করে। তবে ছাত্রলীগ কর্মী জাহিদ পালিয়ে যায়। এ বিষয়ে পিরোজপুর সদর থানার অফিসার্স ইনচার্জ মো: মাসুমুর রহমান বিশ্বাস জানান, এ ঘটনায় স্কুল ছাত্রী নিজে বাদি হয়ে দুই জনের নামে মামলা দায়ের করেছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।