বান্দরবানের এনজিও’র এনার্জি গ্লোব এ্যাওয়ার্ড জয়

ওমর ফারুক, বান্দরবান প্রতিনিধি: বান্দরবান পার্বত্য জেলার বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা (এন.জি.ও) তাহ্জিংডং আর্থ ক্যাটাগরিতে “দ্য এনার্জি গ্লোব এ্যাওয়ার্ড-২০১৬” অর্জন করেছে। যা পরিবেশের অস্কার হিসাবে পরিচিত। গত ১০ নভেম্বর মরক্কোর, মারাক্কেশে অনুষ্ঠিত ২২তম বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলনে তাহজিংডং’কে এ পুরস্কার প্রদান করা হয়।

বাংলাদেশ-যুক্তরাজ্যের সরকারের যৌথ অর্থায়নে পরিচালিত আরণ‍্যক ফাউন্ডেশনের “জনসমস্টি কর্তৃক গ্রামীণ সাধারন বন সংরক্ষন প্রকল্প রোয়াংছড়ি, বান্দরবান” শীর্ষক প্রকল্পের জন্য তাহ্জিংডংকে এ এ্যাওয়ার্ড প্রদান করেন। এনার্জি গ্লোব এ্যাওয়ার্ড এখনো পর্যন্ত পরিবেশ বিষয়ক সর্বোচ্চ আন্তর্জাতিক সম্মাননা, যা ১৯৯৯ সাল থেকে প্রদান করে আসছেন অলাভজনক সংস্থা এনার্জি গ্লোব ফাউন্ডেশন।
unnamed
অস্ট্রিয়ার নাগরিক উলফগাং নয়মানের প্রতিষ্ঠিত এনার্জি গ্লোব ফাউন্ডেশন এই পুরস্কার দিয়ে থাকে।

সংস্থার ওয়েবসাইটে জানানো হয়, ছয়টি বিভাগে পুরস্কারের জন্য ১৭৮টি দেশের দুই হাজার আবেদন জমা পড়ে। জুরিবোর্ড আর্থ ক্যাটাগরিতে বান্দরবানের তাজিংডং এর “জনসমস্টি কর্তৃক গ্রামীণ সাধারন বন সংরক্ষন প্রকল্প” নামে প্রকল্পটি অনুমোদন করেন।

অরণ্যক ফাউন্ডেশন ২০০৯ সাল থেকে এ প্রকল্পে অর্থায়ন ও সার্বিক সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসাবে কাজ করছেন।
unnamed-5

“জনসমস্টি কর্তৃক গ্রামীণ সাধারন বন সংরক্ষন প্রকল্প রোয়াংছড়ি, বান্দরবান” প্রকল্পটির মাধ‍্যমে প্রায় তের হাজার হেক্টর বনকে ব‍্যবস্থাপনার আওতায় এনে ৮টি গ্রামের এক হাজার আদিবাসী পরিবারকে সুপেয় পানির ব‍্যবস্থা করেছেন তাহ্জিংডং। অবৈধ পাহাড় কাঁটা, পাথর উত্তোলন ও বন ধ্বংসের ফলে পাহাড়ি পরিবেশে বিপর্যয়ের সৃষ্টি হয়েছে। তাহ্জিংডং এর জনসমস্টি কর্তৃক গ্রামীণ সাধারন বন সংরক্ষণ প্রকল্পের মাধ্যমে পরিবেশ সুরক্ষিত হবে বলে জানান স্থানীরা।

এ সংরক্ষিত বন থেকে দৈনিক ৩লক্ষ ৮৭ হাজার লিটার পরিশোধিত পানি সংগৃহীত হয়ে থাকে। পরিশোধন করা বিশুদ্ধ এ পানি ব‍্যবহারের ফলে পানি বাহিত ডায়রিয়া, জন্ডিস, ও এলার্জি জনিত রোগ থেকে মুক্তি পেয়েছেন ৮টি পাড়ার এক হাজার পরিবারের সদস্য।

উপকার ভোগী ২নং তারাছার রোয়াংছড়ি উপজেলার প্লেদই পাড়ার (ম্র‍্যো পাড়া) কামচং ম্র‍্যো জানান, “আমরা আগে অনেক দূরে ঝিড়ি থেকে খাওয়ার ও ব্যবহারের পানি সংগ্রহ করতাম যার ফলে আমাদের নানান অসুখ ও ঝিড়িতে পড়ে দুর্ঘটনার সম্মুখীন হতাম, এখন আর সমস্যা হয় না”

অরণ্যক’র নির্বাহী পরিচালক ফরিদ উদ্দীন আহমেদ জানান, “তাহ্জিংডং বান্দরবানের পরিবেশ, স্বাস্থ্য ও স্যানিটেশন নিয়ে কাজ করছে তাঁদের সার্বিক সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসাবে আর্থ ক্যাটাগরিতে এনার্জি গ্লোব এ্যাওয়ার্ড অর্জনে আমরা আনন্দিত, এটা সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টার ফসল”।

তাহ্জিংডং এর নিবার্হী পরিচালক অংশৈসিং মারমা জানান, “ছয় টি বিভাগে ১৭৮টি দেশের সাথে প্রতিয়োগীতা করে তাহ্জিংডং পরিবেশ রক্ষায় আর্থ ক্যাটাগরিতে আর্ন্তজাতিক পুরস্কার পেয়েছে, এটা আমাদের দেশের জন্য গর্বের এবং আমরা (তাজিংডং) ফরিদ উদ্দীন স্যারের কাছে কৃতজ্ঞ”।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।