মেডিকেল অফিসারকে এবার মালাউন বলে গালি দিলেন যুবলীগ নেতাকর্মীরা !

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ
ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) স্বপন কুমার কুন্ডুকে মালাউন বলে গালি দিলেন এবার যুবলীগের নেতাকর্মীরা।

শুধু মালাউন বলেই তারা ক্ষ্যন্ত হন নি, এ সময় বিশ্রি ভাষায় গালিগালাজ করা হয়। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে নিাইদহ সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসারের রুমে।

এ ঘটনায় চিকিৎসকদের মধ্যে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার স্বপন কুমার কুন্ডু খবরের সত্যতা স্বীকার করে জানান, মঙ্গলবার দুপুরে নিজেদের যুবলীগ পরিচয় দিয়ে ৫/৭ জন ব্যক্তি তার রুমে প্রবেশ করেন।

এ সময় তারা বিআরটি এর একটি ফরম পুরণ করে তাতে সাক্ষর দেবার জন্য বলেন। বিআরটি এর ফরমে তিনি সাক্ষর দেন না জানানো পর যুবলীগ কর্মীরা উত্তেজিত হয়ে গালিগালাজ করে বলে ওঠেন“ শালা মালাউনের বাচ্চাকে এই চেয়ারে বসিয়েছে কে”।

এ সময় ঝিনাইদহ বিএমএর নেতা ডা: দুলাল কুমার চক্রবর্তী প্রতিবাদ করে যুবলীগ পরিচয়দানকারী কর্মীদের ভাষা ঠিক করে কথা বলার অনুরোধ করেন। ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের চিকিৎসক ডাঃ বসির উদ্দীন ও শাহ আলম প্রিন্সসহ হাসপাতালের কর্মকর্তা কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন। এহেন আচরণে কর্মকর্তা কর্মচারীদের মাঝে ক্ষোভ লক্ষ্য করা যায়।

আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) স্বপন কুমার কুন্ডু আরো জানান, তার দীর্ঘ চাকরী জীবনে এ ধরণের আচরণের শিকার হননি। তিনি এমন আচরণে মর্মাহত হয়েছেন বলেও জানান। বিষয়টি নিয়ে হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা: আয়ূব আলী জানান, তিনি সাংবাদিকদের কাছ থেকে ঘটনাটি শুনেছেন।

উপস্থিত একটি সুত্র জানায়, ঝিনাইদহ শহরের পাগলাকানাই এলাকার যুবলীগ নামধারী যুবকরা এই আচরণ করেছেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।