বলিউডে অনুকরণীয় বাংলাদেশের সালমান শাহ

সালমান নব্বইয়ের দশকে যে ফ্যাশন সচেতন ছিলেন তা যে অনুকরণীয় তা প্রজন্মের ফ্যাশন সচেতন তরুণদের দেখলেই বোঝা যায়। অনেকের মতেই সালমান শাহ এমন একজন অভিনেতা ছিলেন যিনি যেকোনো স্টাইলই মানিয়ে নিতেন।

অনেকে সালমান শাহকে অনুকরণ করেন। এমন কি বলিউডের অভিনেতারা পর্যন্ত সালমান শাহের স্টাইল অনুকরণ করেন। কিন্তু সালমান শাহের মতো হয় না। সালমান শাহ একটাই হয়, দুটি নয়, হয়ত হবে নাও কোনোদিন।

২০১৪ সালে  বলিউডের আশিকি টু চলচ্চিত্রের নির্মাতা শুটিং সেটে নায়ক আদিত্য রায় কাপুরকে চরিত্র বুঝিয়ে দিতে গিয়ে বলছিলেন, “তোমাকে আমি বাংলাদেশের প্রয়াত নায়ক সালমান শাহর লুকে চাই। সালমানের স্টাইলগুলো ফলো করো।” পরবর্তীতে সালমান শাহ অভিনীত কিছু সিনেমার ভিডিও ফুটেজ দেখানো হয় আদিত্যকে। এ খবর ভারতীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়।

সালমানের ফ্যাশন স্টাইল এতোটাই অনুকরণীয় যে এখনো উপমহাদেশের বিভিন্ন দেশে সালমানের আর্কাইভ ঘেটে তাঁর স্টাইল অনুসরণ করা হয়।  সালমান শাহের মাথায় কাপড় বাঁধা স্টাইল সে সময় এতটাই জনপ্রিয় হয়ে যায় যে পাড়া মহল্লার তরুণদের মাথায় কাপড় বাঁধায় হিড়িক পড়ে যায়।

গত বছরের ১৩ অক্টোবর সেখান থেকে একটি ছবি পোস্ট করেন ফেসবুকে। ‘প্রেম পিয়াসী’র সালমানের একটি ছবির সঙ্গে শাকিবের এ ছবিটি হুবহু মিলে যায়। হেয়ার কাটিং, কানের দুল, তাকানোর স্টাইল- সবই সালমানের মতো। তবে সালমান শাহ চুলে রং করেননি। কিন্তু শাকিব চুল রাঙাতে ভুলেননি। এ ছাড়া শাকিব বলেন, “সালমান শাহ আইকন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।