ইউসুফ-জুলেখা’র দেখাচ্ছে এসএ টিভি

পবিত্র কুরআনের সূরা ইউসুফের আলোকে নির্মিত ইরানি ধারাবাহিক ‘ইউসুফ-জুলেখা’ বাংলা ভাষায় সম্প্রচার শুরু হচ্ছে। আগামী ২৭ নভেম্বর রাত ৮টা ৪০ মিনিটে ধারাবাহিকটির প্রথম পর্ব বাংলাদেশের এসএ টিভিতে সম্প্রচারিত হবে।

ফার্সিতে এ ধারাবাহিকের নাম হচ্ছে ‘ইউসুফ পয়গম্বর’। এসএ টিভির উপদেষ্টা আমিনুল ইসলাম ও ম্যানেজার (মার্কেটিং) নাজমুল তালুকদার অভি এসব তথ্য জানিয়েছেন। এর আগে এ ধারাবাহিকটি লেবানন, সিরিয়া, ইরাক ও আফগানিস্তানসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সম্প্রচারিত হয়েছে বলে জানা গেছে।

ইউসুফ-জুলেখা ধারাবাহিকে হজরত ইউসুফ (আ.)’র জীবনের নানা ঘটনা স্থান পেয়েছে। ইয়াকুব (আ.)’র সময়কার সামাজিক অবস্থা থেকে শুরু করে হজরত ইউসুফ (আ.)’র জন্ম, সহোদরদের হিংসা-বিদ্বেষ, কূপে নিক্ষেপ, যৌবনে মহাপরীক্ষা, অভিজাত মহিলাদের সমাবেশে ইউসুফ (আ.)’র উপস্থিতি, জুলেখার নানা অনৈতিক তৎপরতা, মহিলাদের উসকানি, অর্থমন্ত্রীর দায়িত্বলাভ, জুলেখার পাপের প্রায়শ্চিত্ত এবং অবশেষে ইউসুফ-জুলেখার বিয়েসহ নানা রোমান্টিক ও শিক্ষণীয় ঘটনায় ভরপুর এ ধারাবাহিক।  

ইউসুফ- জুলেখা ধারাবাহিকটি বাংলায় অনুবাদের সঙ্গে রয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্সি বিভাগের সহকারি অধ্যাপক মুমিত আল রশিদ। তিনি এ ধারাবাহিকটি সম্পর্কে রেডিও তেহরানকে বলেছেন, “সিরিয়ালটি অনুবাদ করতে গিয়ে আমি কখনো আবেগে কেঁদেছি, কখনও হেসেছি। চমৎকার একটি সিরিয়াল। ধারাবাহিকের অভিনেতা-অভিনেত্রীদের পোশাক-পরিচ্ছদে অশ্লীলতা ও বেহায়াপনার লেশ মাত্র নেই।”

তিনি আরও বলেন, “ধারাবাহিকটিতে বর্তমান বাংলাদেশে প্রচলিত সিরিয়ালগুলো থেকে সম্পূর্ণ ভিন্নমাত্রা রয়েছে। কোন ধর্মের প্রতি কোনরূপ বিরূপ ধারণা পোষণ বা আঘাত করা হয় নি।” তার মতে, এটি সব ধরণের দর্শককেই মন্ত্রমুগ্ধ করবে। এ ধারাবাহিকে প্রাচীন শহর বাবেল, কেনান, শাম, মিশর সর্বোপরি আরব দেশের প্রাচীন ব্যবস্থা সম্পর্কে ধারণা পাবেন একজন দর্শক। ধারাবাহিকটি দর্শকদেরকে ইতিহাসের আনাচে-কানাচে নিয়ে যাবে।

প্রাচীন দাস প্রথা, বানিজ্যিক ভ্রমণ, খাবার-দাবার সম্পর্কেও ধারণা পাওয়া যাবে বলে তিনি জানিয়েছেন।#

পার্সটুডে

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।