সৌদি আরবে ছাদ ধসে মৃত্যু- বাড়ি ফেরা হল না জসিমের

ভাগ্যের চাকা ঘুরাতে বিদেশ পাড়ি। ২০১১ সাল থেকে পরিবার-পরিজন ছেড়ে একটু ভালো উপার্জনের আশায় সৌদি আরব পারি জমান মাদারীপুরের শিবচরের জসিম উদ্দিন। দুই কন্যা, এক পুত্র সন্তান ও স্ত্রী নাজমা আক্তার নিয়ে পরিবার নিহত জসিম উদ্দিনের। এ বছরের আগামী বছরের প্রথম দিকে বাড়িতে ফেরার কথা থাকলেও ভাগ্যের নির্মম পরিহাস পাল্টে দিয়েছে সব চিত্র।

শনিবার সৌদি আরবের রিয়াদে একটি বাড়ির ছাদ ধসে মারা যান শিবচরের জসিম উদ্দিন (৪০)। এ সময় মারা যান আরো এক বাংলাদেশী। নিহত জসিম উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়নের ডিক্রিরচর এলাকার মৃত ছলিমউদ্দিন ঢালীর ছেলে।

শনিবার বাড়িতে মৃৃত্যুর খবর পৌছালে দিশেহারা হয়ে পরেন স্ত্রী-সন্তান-স্বজনেরা। পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তির মৃত্যুতে থমকে গেছে পুরো পরিবারটি।
স্বজন ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা, মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার কাদিরপুর ইউনিয়নের ডিক্রীরচর গ্রামের ৩ সন্তানের জনক জসিম উদ্দিন ঢালী ২০১১ সালে সৌদি আরব যান।
গত শনিবার রাতে মৃত্যুর খবর পৌঁছালে কান্নায় ভেঙ্গে পরেন স্বজনরা। পরিবারের উপার্জনক্ষম ব্যক্তিকে হারিয়ে অসহায় হয়ে পরে পরিবারটি। নিহতদের পরিবারসহ এলাকাবাসীর একটাই চাওয়া লাশ দ্রুত ফিরিয়ে আনা হোক দেশে।

নিহত জসিমের বড় ভাই নুরুল ইসলাম ঢালী বলেন, ‘ভাইয়ের এই মৃত্যু আমরা মেনে নিতে পারছি না। সরকারের কাছে একটাই চাওয়া জসিমের লাশ দ্রুত দেশে ফিরিয়ে আনা হোক।’

কাদিরপুর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড সদস্য আব্বাস আলী মুন্সী বলেন, ‘সরকারিভাবে নিহতের পরিবারকে ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতা দেয়া হবে।’

শনিবার বাংলাদেশ সময় বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সৌদি আরবের রিয়াদের আলখারিজে ভবনের ছাদ ধসে মারা যান দুই বাংলাদেশী। এ সময় আহত ২ জনকে স্থানীয় হাসপাতালে গুরুতর অবস্থায় ভর্তি করা হয়।

মেহেদী হাসান সোহাগ
মাদারীপুর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।