চিকিৎসায় নোবেল পুরষ্কারে আবারো বৈজ্ঞানিকভাবে প্রমানিত হলো ” রোজা স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী “

চিকিৎসাশাস্ত্রে চলতি বছর নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন জাপানের বিজ্ঞানী ইয়োশিনোরি ওশুমি । জীবদেহের কোষ নিয়ে এবং কোষের বিকার নিয়ে কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ইয়োশিনোরিকে এ সম্মান দেওয়া হয়েছে। ইয়োশিনোরি ওশুমি বিভিন্ন শারীরিক প্রক্রিয়ায় ‘অটোফ্যাগি’র গুরুত্ব বোঝার উপায়ের ব্যাপারে আলোচনা করেছেন, যা বিষয়টি নিয়ে জানার বিভিন্ন পথ খুলে দিয়েছে।

ইয়োশিনোরির মূল কাজ অটোফ্যাগি নিয়ে। Autophagy অপ্রয়োজনীয় বা ক্রিয়াহীন কোষীয় উপাদান পুনর্ব্যাবহার প্রক্রিয়া- তথাকথিত কোষীয় আবর্জনা যা কোষে জড়ো হয়। Autophagy মানুষের সহ জীবন্ত প্রাণীর অপরিহার্য বৈশিষ্ট্য। কোষের বাড়তি অংশ থেকে পরিত্রাণ পেতে এবং জীবকে অপ্রয়োজনীয় কোষ থেকে পরিত্রাণ পরিত্রাণ পেতে সাহায্য করে ।

সাধারনত বেশি হয় যখন কোন জীব প্রতিকুল অবস্থায় থাকে যেমনটা রোজাতে হয়ে থাকে। এসময় কোষ নিজের আভ্যন্তরীন উপাদান যেমন কোষীয় বর্জ্য কিংবা রোগ সৃষ্টি করতে সক্ষম এমন ব্যাকটেরিয়া ব্যবহার করে শরীরের জন্য শক্তি উৎপাদন করে।

নোবেল বিজয়ী ইয়োশিনোরি ওশুমির গবেষনা থেকে প্রমানিত হয় যে মাঝে খাবার থেকে বিরত থাকা যেমনটা রোজাতে করা হয়ে থাকে , শরীর তার কোষীয় বর্জ্য পরিষ্কার করে থাকে। নোবেল কমিটি পুরষ্কার দেয়ার মাধ্যমে তার এই গবেষনার স্বীকৃতি দিলো।

সহকর্মীদের মতে , Autophagy একটি জীবকে অল্প বয়সে বুড়িয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করে। এই প্রক্রিয়ায় জীব নতুন কোষ তৈরি, ত্রুটিপূর্ন প্রোটিন এবং মারা যাওয়া আন্ত:কোষীয় কোষাঙ্গ ধংস করে দেয়ার মাধ্যমে শারীরিক সুস্থতা বজায় রাখে ।

তথ্যসুত্র : http://www.pravoslavie.ru/english/print97617.htm

মো: এনামুল হক মনি
পিএইচডি গবেষক
কোরিয়া

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।