ট্রাম্প তুমি কার? জঙ্গিদের না জনগনের!

বাংলামেইল ৭১: মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলীয় প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প বহুবার ডেমোক্রেট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনকে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন আইএস এর প্রতিষ্ঠাতা বলে দাবী করে আসছেন। অন্যদিকে, সেই ট্রাম্পের পক্ষেই জঙ্গি সংগঠন গুলোর কৌশলী প্রচারণায় ভাবিয়ে তুলছে বিশেষজ্ঞদের। অনেকেই প্রশ্ন তুলছেন, আসলে ট্রাম্প কার সম্পদ, জনগনের নাকি জঙ্গিদের?  এদিকে নির্বাচনের দিন ভোটারদের ওপর হামলার হুমকি দিয়েছে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন আইএস। অন্যদিকে দেশিয় গেরিলাদের সসস্ত্র প্রস্তুতি ও আল কায়দার মতো সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোর সম্ভাব্য হুমকিতে নির্বাচনের আগ মুহূর্তে দেশ জুড়েই আতঙ্ক তৈরী হয়েছে।

নিউ ইয়র্ক টাইমস, রয়টার্স , ওয়াশিংটন পোস্টসহ বেশ ক’টি শক্তিশালী গণমাধ্যমে জঙ্গী গোষ্ঠী গুলোর সম্ভাব্য হামলা নিয়ে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠার কথা উঠে এসেছে। সোস্যাল মিডিয়ায় ব্যক্তিগত পর্যায়ে হাজারো ইমিগ্রান্ট কমিউনিটির সদস্যরা নির্বাচন পরবর্তী হামলার আশংকা প্রকাশ করে যাচ্ছেন। যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের ইতিহাসে এমন ধরণের বহুমূখী হামলার আশঙ্কার ঘটনা এবারই প্রথম। তবে সহিংসতার প্রকাশ্য হুমকি বেশি আসছে যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক জঙ্গী সংগঠন কু ক্লাস ক্লান (কে কে কে) এবং জর্জিয়া সিকিউরিটি ফোর্স ৩ পারসেন্ট এর পক্ষ থেকে । রিপাবলিকান দলীয় প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে বিজয়ী করতেই এ ধরণের হুমকি দেয়া হচ্ছে বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে হিলারি সমর্থকদের বাড়িতে বাড়িতে। এ হামলার হুমকি বাড়তে থাকে রিপাবলিকান দলীয় প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনে বিজয়ী না হলে ফল মেনে না নেয়ার ঘোষণা থেকে। তিনি আরেক বক্তব্যে এও বলেছেন, নির্বাচনে কারচুপি হবার সম্ভাবনা রয়েছে। এসব বক্তব্য থেকে গেরিলা সংগঠনগুলোকে নতুন উদ্দিপনা নিয়ে সংগঠিত হতে উৎসাহিত করেছে বলে মনে করে দেশটির রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

সম্প্রতি জঙ্গী সংগঠন কেকেকে- এর সাবেক নেতা ডেভিড ডিউক সিএনএন দেয়া এক সাক্ষাতকারে প্রকাশ্যে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সমর্থনের কথা ব্যক্ত করেছেন। কেকেকে প্রকাশিত মূখপাত্র ‘ক্রোসেডার’- ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনী শ্লোগান ‘ মেইক আমেরিকা গ্রেট এগেইন’ শ্লোগানটি ব্যানার হেড লাইন করে প্রচার করেছে। কেকেকে হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রে সাদা আধিপত্যবাদ প্রতিষ্ঠার একটি ঘৃনিত আন্দোলনের নাম। তাদের রয়েছে দেশ জুড়ে সসস্ত্র জঙ্গী বাহিনী। ভোটগ্রহণের দিন কালো বর্ণের ভোটারদের আন্ডারকাভার অবস্থায় আক্রমনে উৎসাহ দেয়া হচ্ছে সংগঠনটির পক্ষ থেকে। প্রয়োজনে ভোট কেন্দ্রে নাশকতা চালাবার পরিকল্পনাও নিয়েছে সংগঠনটি। এনিয়ে সোস্যাল মিডিয়ায় ‘ নাউ দিস’ একটি সতর্কতা মূলক ভিডিও প্রচার করেছে।

জর্জিয়া সিকিউরিটি ফোর্স ৩ পারসেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণায় শহরে শহরে ইমিগ্রান্ট, মুসলিম ও সিরিয়ান রিফিউজিদের বিরুদ্ধে জনমত গড়ে তুলতে কাজ করেছে এ গ্রুপের সদস্যরা। এ সংগঠনটির ৪২ বছর বয়স্ক কমান্ডার গ্রিণ হিল এক ভিডিও সাক্ষাতকারে বলেন, ওবামার গত আট বছর ছিল অত্যন্ত খারাপ । হিলারি ক্ষমতায় আসলে তাদেরকে আরো এক হাত নিবেন। হিল আরো মনে করেন , যুক্তরাষ্ট্রের দীর্ঘ দিনের লালিত বিশ্বাস উদার এবং ইমিগ্রান্টদের দ্বারা ছিনতাই হয়ে গেছে। সেদিন বেশি দূরে নয় যেদিন এ দেশটি মুসলিমদের ভূমি হয়ে যাবে- এমন আশংকার কথাও জানান সংগঠনটির এ কমান্ডার। কমান্ডার হিল আরো জানান, তারা ডোনাল্ড ট্রাম্পের অনুসারী নন কিন্তু আত্মরক্ষার উপায় হিসেবে হিলারির বিপরীতে এ নির্বাচনে তারা ডোনাল্ড ট্রাম্পকে বেছে নিয়েছেন।

জর্জিয়া সিকিউরিটি ফোর্সের আরেক নারী সদস্য তেরেসা বিউটার মনে করেন, আমাদের এই ছোট্র গ্রুপটির সাথে ডোনাল্ড ট্রাম্প বেশ মানানসই । যেমনটা আমরা আমেরিকাকে দেখতে চাই তিনিও ঠিক সেভাবেই আমেরিকাকে ফিরিয়ে আনতে চান। গণমাধ্যমে প্রচারিত সাক্ষাতকারে দেখা যায় ৩ পারসেন্ট এর কমান্ডার হিল বলেন, যদি হিলারি ক্লিনটন নির্বাচিত হন, তাহলে দেশের সকল অঞ্চল থেকে হামলা করবার জন্য আমরা প্রস্তুত আছি। সেন্টার অন এক্সিট্রিমিজম এট দ্যা এন্টি ডিফেমেশন লীগ- এর সিনিয়র ফেলো পিটকাভেজ জানান, ৫০ টি অঙ্গরাজ্যে তাদের ৩৩০ জন সদস্যের একটি গেরিলা গ্রুপ প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। আরো নতুন সদস্য এতে যোগ দিচ্ছে । তিনি আরো মনে করেন, এ জঙ্গী আন্দোলনটি অত্যন্ত শক্তিশালীভাবে ট্রাম্পের পক্ষে কাজ করছে।

যুক্তরাষ্ট্রের সাউদার্ন পোবার্টি ল সেন্টার থেকে প্রকাশিত ‘হেইটওয়াচ’ ব্লগের সম্পাদক রায়ান লেঞ্জ বলেন, ডোনাল্ড ট্রাম্পের এন্টি এস্টাব্লিশমেন্ট ভিত্তিক মতামত গ্রুপটিকে এক রোগাক্রান্ত রাজনীতির দিকে পরিচালিত করেছে। এদিকে নির্বাচনের দিন আল কায়েদার পক্ষ থেকে হুমকি পাওয়ায় নিউ ইয়র্ক, টেক্সাস এবং ভার্জিনিয়া সর্বোচ্চ সতর্কাবস্তা জারি করা হয়েছে। এধরণের হুমকির বাস্তবতায় রোবাবার থেকেই নিউ ইয়র্ক সিটিতে ব্যাপক ভিত্তিক পুলিশ মোতায়েন করার ঘোষণা দিয়েছেন সিটি মেয়র ডি ব্লাজিও।

সূত্র: jamunanews24.com/a.rahim…

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।