মুসলিম ভোট- হিলারি ৭২%, ট্রাম্প ৪%

আমেরিকার ৮৬ শতাংশ মুসলমান ভোটারই জানিয়েছেন তারা প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ভোটে অংশ নেবেন।

দ্য কাউন্সিল অন আমেরিকান ইসলামিক রিলেশন্স (সিএআইআর) সম্প্রতি দেশব্যাপী জরিপের ফলাফল প্রকাশ করেছে।

হিলারি বা ট্রাম্পের জয়ী হওয়ার পেছনে এই বিপুল সংখ্যক মুসলমান ভোটারের ভোট বেশ প্রভাব ফেলবে।

ওই জরিপ অনুযায়ী, ৭২ ভাগ মুসলিম নাগরিক জানিয়েছে, তারা ডেমোক্রেট দলের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনকে ভোট দেবেন। অপরদিকে, মাত্র চার ভাগ মুসলিম ট্রাম্পের প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন।

ওই জরিপ অনুযায়ী, ৮৫ ভাগ মুসলমান বিশ্বাস করেন, কয়েক বছর ধরে ইসলাম ভীতি এবং ইসলাম বিরোধী অনুভূতি বৃদ্ধি পেয়েছে। সম্প্রতি ইসলাম ও মুসলিমদের নিয়ে ট্রাম্পের বিদ্বেষমূলক মন্তব্য বর্ণবিদ্বেষকে আরো উস্কে দিচ্ছে।

এদিকে, নিজেদের ইতিহাসের সবচেয়ে তিক্ত নির্বাচনের সাক্ষী হচ্ছে আমেরিকা। নজিরবিহীন তিক্ততার সৃষ্টি হয়েছে নির্বাচনী প্রচার চলাকালীন। এ বার আমেরিকা দেখছে নজিরবিহীন অশান্তি। বিভিন্ন ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে রিপাবলিকান পার্টির কর্মী-সমর্থকরা ভোটারদের ভয় দেখাচ্ছেন বলে খবর। ভোটকেন্দ্রের সামনে ডেমোক্র্যাট ও রিপাবলিকানদের মধ্যে গোলমালের খবরও পাওয়া গেছে।

আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচন ঘিরে ভোটারদের মধ্যে উৎসাহ কিন্তু এ বার তুঙ্গে। মঙ্গলবার সকাল থেকেই বিভিন্ন ভোটকেন্দ্রের সামনে ভোটারদের লম্বা লাইন দেখেগেছে। ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দিতে হয়েছে। আমেরিকার ভোটকর্মীরাও এ বারের নির্বাচন সামাল দিতে বেশ নাজেহাল হচ্ছেন বলে বিভিন্ন মার্কিন সংবাদমাধ্যম সূত্রের খবর।

ট্রাম্প সমর্থকরা আগ্রাসী মনোভাব নিয়ে ভোট সামলাতে ময়দানে নেমেছেন বলে বলেও জানা যায়। ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজেই দলের কর্মী-সমর্থকদের সক্রিয় হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

রিপাবলিকান প্রার্থীর অভিযোগ, ডেমোক্র্যাটরা নির্বাচনে কারচুপি করার চেষ্টা করবে। ভোটগ্রহণে অনিয়ম রুখতে গোটা ভোট প্রক্রিয়ার উপর কড়া নজর রাখতে হবে, দলীয় কর্মীদের এমনই নির্দেশ ডোনাল্ড ট্রাম্পের।

অতি উৎসাহী ট্রাম্প সমর্থকরা বিভিন্ন ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের সামনে ভোটারদের ভয় দেখাতে শুরু করেছেন বলে খবর। হিলারি ক্লিন্টন এবং ডোনাল্ড ট্রাম্প শিবিরের মধ্যে তা নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় গোলমাল হচ্ছে বলেও জানা গেছে।

নতুন বার্তা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।