দেশে চলছে ভিন্ন মোড়কের বাকশালী শাসন: ফকরুল

আওয়ামী লীগ সরকার ভিন্নমতকে কখনোই সহ্য করতে পারে না বলে ভিন্ন মোড়কে এখন একদলীয় বাকশালী শাসন কায়েমের পথে এগিয়ে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম।

আজ শনিবার (২৯ অক্টোবর) দুপুরে রাজধানীর ভাসানী মিলনায়তনে ঢাকা মহানগর বিএনপির যৌথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ফখরুল বলেন, এই সরকার সভা-সমাবেশের জায়গাগুলো সঙ্কুচিত করে ফেলেছে। আমরা যখনই কোনো সভা সমাবেশের আয়োজন করতে চাই সরকার তখনই বিধি নিষেধ আরোপ করে। আগে পল্টন ময়দানে, মুক্তাঙ্গণে সভা করা যেত। এখন সেগুলো বন্ধ করে দিয়েছে। তারপর আইন করে দিয়েছে যে সভা করতে হলে পুলিশের অনুমতি লাগবে।

উল্লেখ্য, আগামী ৭ নভেম্বর জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে এ যৌথসভার আয়োজন করা হয়। ঢাকা মহানগর বিএনপির সভাপতি মির্জা আব্বাসের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন- স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আব্দুস সালাম, আবুল খায়ের ভুইয়া প্রমুখ।

মির্জা ফখরুল ৭ নভেম্বরের প্রসঙ্গ টেনে বলেন, ৭ নভেম্বর আমাদের জাতীয় জীবনে খুবই গুরুত্বপূর্ণ দিবস। সেই দিনই বাংলাদেশে জাতীয়তাবাদী রাজনীতির ভিত্তি রচিত হয়েছিল। এই দিনটিকে যথাযথভাবে পালনের লক্ষ্যে ঢাকা মহানগর বিএনপির সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের অনুমতি চেয়েছে। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে কথা হয়েছে। আশা করি তারা অনুমতি দিবেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, বর্তমান সরকার বিরোধী মতকে সহ্য করতে পারেনা। আসলে আওয়ামী লীগ কখনোই ভিন্ন মত সহ্য করতে পারে না। তারা এখন ভিন্ন মোড়কে পুরনো কায়দায় একদলীয় বাকশালী শাসন চালাচ্ছে। বিরোধী দলকে দমন করে সেই পথেই এগোচ্ছে। এমতাবস্থায় সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলন করার আহ্বান জানান মির্জা ফখরুল।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।