পুলশি চাঁদরে ঢাকা পল্টন, আজ জেন ঢাকায় হরতাল

অনুমতি না পাওয়ায় নয়াপল্টন কার্যালয়ের সামনে বিএনপি কোনো কর্মসূচি দেয়নি। দলীয় নেতা-কর্মীও আসেন নি সেখানে।

কিন্তু মঙ্গলবার (০৮ নভেম্বর) সকাল থেকে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এবং আশপাশের সড়কে।

সকাল সাড়ে ৯টায় আটক করা হয়েছে জাতীয়তাবাদী মহিল দলের দুই কর্মী মেঘলা ও মনিরাকে।

৭ নভেম্বর জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করতে চেয়ে অনুমতি পায়নি বিএনপি।

বিকল্প জায়গা হিসেবে নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কাযালয়ের সামনে সমাবেশ করার ঘোষণা দেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

সোমবার (০৭ নভেম্ব) ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে মহানগরের কোনো সড়কে সমাবেশ করা যাবে না।

এর পরও বিএনপির ক’জন বাকপটু নেতা ‘সমাবেশ করবই’ বলে অগ্রিম ঘোষণা দিয়েছিল। এরই প্রেক্ষিতে মহিলা দলের কিছু নেতাকর্মী মঙ্গলবার সকালে নয়াপল্টন কার্যালয়ে হাজির হন।

এদের মধ্য থেকে ২ জনকে সকাল সাড়ে ৯টায় আটক করে পল্টন থানা পুলিশ। পরে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

তবে যেসব নেতা সমাবেশ ‘করবই’ বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন তাদের কাউকে বিএনপি অফিসে দেখা যাচ্ছে না।

সকাল পৌনে ১১টায় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নয়াপল্টন আসেন। গাড়ি থেকে নেমে সোজা নিজ দপ্তরে ঢোকেন তিনি। কার্যালয়ে জমা হওয়া মহিলা দলের নেতাকর্মীদের সড়কে না নামার নির্দেশ দেন।

এদিকে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়নের কারণ জানতে চাইলে কর্তব্যপালনরত পুলিশের এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, জনসাধারণের জান-মালের নিরাপত্তা ও যাতায়াত নির্বিঘ্ন করতে আমাদের এই সতর্ক অবস্থান। যে কোনো ধরনের পরিস্থিতি সামাল দিতে আমরা প্রস্তুত।
banglanews

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।