এই জনপদে ইসলামের প্রসার হয়েছে ভালোবাসা দিয়ে, মন্দির ভেংগে নয়

কা’বা শরীফের উপর ফটোশপ করে যে ছেলেটা শিব মূর্তি লাগিয়েছে, সে কোন সুস্থ্য মস্তিষ্কের মানুষ?

একজন অসুস্থ্য, উন্মাদ কিসিম পাগলের ফেসবুক কর্ম নিয়ে আপনি আবেগে ফেটে পড়লেন, মিছিল করলেন, মূর্তি ভাঙলেন। মানুষ বসবাসের ঘরবাড়ী ভাংচুর করলেন। তাহলে ঐ পাগলের চেয়ে আপনি কম কিসে? ইসলাম কী এমন শিক্ষা দেয় কখনো? অন্যের উপাসনালয় ভাঙ্গার অনুমতি আপনি কোথায় পেলেন?

অথচ কোরআন যেখানে বলছে, ‘আল্লাহকে ছেড়ে তারা যাদের ডাকে, তোমরা তাদেরকে গালি দিও না। তাহলে তারা সীমালঙ্ঘন করে অজ্ঞতাবশত আল্লাহকেও দিবে (৬:১০৮)। আল্লাহ যেখানে অন্যের প্রভূকে গালি দিতে কঠিন ভাবে নিষেধ করেছেন, আপনি সেখানে তাদের উপাসনালয় ভেঙ্গে চুরমার করে দিলেন। কত্ত বড় ঈমানদার আপনি, ভাবা যায়!

রাসূল সঃ এর শিক্ষা হলো ‘মানুষের জন্য তা-ই ভালবাসবে যা নিজের জন্য ভালোবাস, তবেই মুসলিম হবে’। এবার কন, আপনি কি চাইবেন যে অমুসলিমরা আপনার ইবাদাতখানা মসজিদ ভেঙ্গে চুরমার করুক? কক্ষনও না। তাহলে ওন্যের উপাসনালয় কেন ভাঙতে যান? কার প্ররোচনায়?

কী সুন্দর ভাবে রসূলুল্লাহ স. বলে গেছেন ‘সকল সৃষ্টি আল্লাহর পরিবার, সেই আল্লাহর অধিক প্রিয় যে আল্লাহর পরিবারকে ভালোবাসে’। নিজেকে প্রশ্ন করেছেন কখনোও- আল্লাহর সৃষ্টিকে কতটা ভালবাসতে পেরেছেন?

এই জনপদে ইসলামের প্রসার হয়েছে শুধু ‘ভালবাসা’ দিয়ে, মন্দির ভেঙ্গে নয়। মনের মন্দির দখল করলে মাটির মন্দির কোন বাঁধা নয়। ওটা এমনিতেই ভেঙ্গে পড়ে। কে জানে হয়তো আপনার কোন পূর্ব পুরুষ ওই মন্দিরেই ঈবাদাত করত!

আপনার কিছু অন্ধ আবেগ এই জনপদকে গুজরাট বানাতে পারে। গুজরাটি ফাঁদে পা দিবেন না প্লিজ। কেউ আপনাকে উষ্কে দিয়ে ফায়দা লুটছে কিনা একবার অন্তঃত ভেবে দেখুন।

মো: আল-আমিন
পিএইচডি গবেষক
কোরিয়া

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।