ভ্যানিটি ব্যাগ চুরি হলে মান সম্মান যায় কিন্তু রাষ্ট্রীয় ব্যাংকের টাকা চুরি করলে সমস্যা নাই!

আসলে, সব চুরি চুরি না। আবার সব চুরিতে বিবেকের নার্ভ গুলো সমান ভাবে জাগ্রত করতে নেই। যেমন, ঢাবি চারুকলায় যদি কোন বিদেশিনীর ভ্যানিটি ব্যাগ চুরি হয়, তাহলে মান সম্মান আর থাকেনা, যায় যায় অবস্থা! একবারের জন্য হলেও আপনাকে ছিঃ ছিঃ বলতে হবে।

কিন্তু, রাষ্ট্রীয় ব্যাংকের টাকা চুরি করলে সমস্যা নাই। রিলিফের গম চুরি মানে তো রীতিমতো ক্রেডিটের বিষয়! যে যত বেশী গম চুরি করতে পারে সে তত বড় নেতা! শেয়ারবাজার চুরি করলে সমস্যা তো নাই-ই বরং প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা হওন যায়। আর ভোট চুরি করলে তো ডাইরেক্ট মন্ত্রী।

সুতরাং সব চুরি, চুরি না। চুরি করতে জানাটাও ক্রেডিটের বিষয়। অন্ততঃ এদেশে।

Mohammad Al-Amin
Seoul, Korea

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।