দাড়ি-টুপিওয়ালা হতে সাবধান ! – হুমায়ুন আজাদপুত্র অনন্যা আজাদ

বইমেলায় দলবেঁধে দাড়ি টুপিওয়ালা যারাই যায় তারাই জঙ্গি। এখন পর্যন্ত বইমেলার যতো ভিডিও দেখলাম তাতে এবারের মেলায় জঙ্গিদের ছড়াছড়ি। চাপাতি-ছুরি ধর্মান্ধ মুসলমানদের বিশ্বাসের বস্তু।

কিছুদিন আগে, বইমেলার সামনে থেকে কয়েকজন জঙ্গিকে চাপাতিসহ গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। তাদের বাঁচানোর জন্য ফেসবুকে প্রোপাগান্ডা ছড়ানো হয়েছিল যে দাড়ি টুপি থাকার কারণেই নাকি গ্রেপ্তার করা হয়েছিল! যারা এই প্রোপাগান্ডা ছড়িয়েছিল তারাই মূলত জঙ্গিদের অর্থদাতা এবং প্রশ্রয়দানকারী।

প্রতিটি সংখ্যা গরিষ্ঠ মুসলমানদের দেশে কয়েকজন অমুসলিম থাকে যারা মুসলমানদের থেকেও নিজেকে বড় মুসলমান প্রমাণ করার জন্য উঠে পড়ে লাগে। আমাদের দেশেও এমন আছে। বেশ কয়েকজন আছে। যারা সাধারণ মুসলমান তারা বোধ করে, বাহ- একজন অমুসলিম কতো সুন্দর করে আমাদের চিন্তাধারাকে সমর্থন দিচ্ছে, আমাদের হিংসাত্মক কর্মকান্ডকেও প্রোপাগান্ডার মাধ্যমে নির্দোষ প্রমাণের চেষ্টা করছে। কিন্তু সাধারণ মুসলমানেরা ভুলে যায়- এই ধরণের সুবিধাবাদী অমুসলিমরাই মুসলমানদের নাম খারাপ করার উদ্দেশ্যে তাদের ভুলকে প্রোপাগান্ডার মাধ্যমে সমর্থন দিচ্ছে এবং তাদের ব্যবহার করে আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছে সেইসব ব্যক্তি।

আজকে মাদ্রাসার ছোট্ট একটা ছাত্রের কাছ থেকে ছুরি পাওয়া গেছে। মাদ্রাসার ছাত্রের কাছে ছুরি-চাপাতি থাকাটা অস্বাভাবিক নয়। বরং মাদ্রাসার ছাত্রের কাছে গোলাপ ফুল পাওয়া গেলে সেটাই অস্বাভাবিক হতো। হয়তো, ছোট্টরা রেকি করবে এবং বড় জঙ্গিরা কোপাবে। এ আর নতুন কী! গত কয়েক বছর ধরে এমনই হয়ে আসছে। দাড়ি-টুপিওয়ালা হতে সাবধান।

Ananya Azad

Leave a Reply