বাংলাদেশের হিন্দুদের রক্ষায় ট্রাম্পের হস্তক্ষেপ চাইলেন হিন্দুরা !

বাংলাদেশের হিন্দুদের রক্ষায় যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রামের হস্তক্ষেপ কামনার পাশাপাশি বাংলাদেশে একটি প্রতিনিধি দল পাঠানোর জন্যে জাতিসংঘ মহাসচিবের কাছে আহ্বান জানিয়েছেন প্রবাসী বাংলাদেশি ধর্মীয় সংখ্যালঘুরা।
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসির নগরে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলা এবং মন্দির ভাঙচুরের ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি এবং ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তায় সরকারকে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণেরও দাবি জানানো হয়।

১১ নভেম্বর নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দফতরের সামনে বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের যুক্তরাষ্ট্র শাখার মানববন্ধন কর্মসূচি থেকে এ দাবি জানানো হয়েছে।

ইংরেজি ও বাংলায় লেখা পোস্টার-ব্যানার হাতে এ কর্মসূচিতে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ, বাংলাদেশ পূজা সমিতি, গৌর নিতাই সংঘ, ভক্তসংঘ, ব্রঙ্কস পূজা সমিতি, শ্রীমদভগবদ গীতাসংঘ, জাস্টিস ফর হিন্দুজসহ ২০ সংগঠনের দুই শতাধিক প্রবাসী এতে অংশ নেন। নারীদের উপস্থিতি ছিল উল্লেখ করার মত।

ট্রাম্পের হস্তক্ষেপ চাইলেন বাংলাদেশি হিন্দুরাগত নির্বাচনে বাংলাদেশ এবং ভারতের অধিকাংশ হিন্দুই ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সমর্থন করেছেন। নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণের পাশাপাশি তারা নগদ অর্থও প্রদান করেছেন।

ঐক্য পরিষদের নেতা শিতাংশু গুহ বলেন, আমরা ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তায় সরকারের কঠোর নীতি দেখতে চাই।

নির্মল পাল বলেন, হিন্দুরা শুধু মার খেয়েই যাচ্ছেন। কোন সরকারই প্রকৃত অর্থে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তায় কোন পদক্ষেপ নেয়নি।

জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি-মুন বরাবরে প্রদত্ত স্মারকলিপিতে অবিলম্বে আইসিটি এ্যাক্ট-৫৭ বাতিলসহ ৭ দফা প্রস্তাবনা উপস্থাপন করা হয়।

মানবকণ্ঠ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।