‘সুস্থ হয়ে উঠলে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে চাই -খাদিজা আক্তার নার্গিস

সুস্থ হয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করতে চান সিলেটের মহিলা কলেজের ছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিস। সোমবার সকালে সাভারের পক্ষাঘাত গ্রস্তদের পুনর্বাসন কেন্দ্রে (সিআরপি) আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে খাদিজা এই আশা ব্যক্ত করেন।

গত ৩ অক্টোবর সিলেটের এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে চাপাতির কোপে আহত হন খাদিজা। মরণাপন্ন খাদিজাকে তাৎক্ষণিক নেওয়া হয় সিলেটের ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। পরদিন ভোরে তাকে আনা হয় রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে। সেই দিনই তার মাথায় এক দফা অস্ত্রোপচার করা হয়।

প্রায় দুই মাস চিকিৎসা শেষে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতাল থেকে আজ সকালে সাভারের সিআরপিতে আনা হয় খাদিজাকে। সেখানে তাকে আরো ১৫ দিন ফিজিওথেরাপি দেওয়া হবে। পরে চিকিৎসকদের পরামর্শে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সোমবার সকাল ১১.২০ মিনিটে একটি সরকারি অ্যাম্বুলেন্স যোগে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতাল থেকে সাভারের পক্ষাঘাত গ্রস্তদের পুনর্বাসন কেন্দ্রে (সিআরপি) আসেন খাদিজা। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন তার বাবা মাশুক মিয়া ও তিন জন নার্স।

এরপর ৪০ মিনিট নিবিঢ় পর্যবেক্ষণের পর তাকে নিয়মিত রোগী হিসেবে খাদিজাকে ভর্তি করেন সিআরপির হেড অফ মেডিকেল সার্ভিস অ্যান্ড কনসালটেন্ট নিউরোসার্জেন বিশেষজ্ঞ ডা. সাঈদ উদ্দিন হেলাল।

এ সময় সংবাদ সম্মেলনে খাদিজার চিকিৎসক জানান, এই তরুণীর বর্তমান অবস্থা স্বাভাবিক হলেও মাথায় গুরুতর আঘাতজনিত কারণে বাম হাত এখনো স্বাভাবিক হয়নি। মস্তিকের ইনজুরির কারণে বলা যাচ্ছে না কত দিনে তিনি সুস্থ হবেন।

এ ব্যাপারে তিনি গণমাধ্যমকর্মীদের সহযোগিতা চেয়ে খাদিজার সঙ্গে কথা না বলার অনুরোধ জানান হাসপাতালের এই চিকিৎসক।
পরে অবশ্য নিজেই কথা বলেন খাদিজা। সুস্থ হয়ে উঠতে প্রধানমন্ত্রী ও দেশবাসীর নিকট দোয়া চান। বলেন, ‘সুস্থ হয়ে উঠলে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে চাই একবার।’

dhakatimes24

১ টি মন্তব্য:

  • নভেম্বর 28, 2016 at 2:42 অপরাহ্ন
    Permalink

    yes! your businnes is so propit.

    Reply

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।