অপেক্ষায় আছি দুর্নীতির দায়ে খালেদা কবে কারাগারে যান: এরশাদ

বিএনপি সরকারের সময়ে নানা নির্যাতন ও ষড়যন্ত্রের কথা উল্লেখ করে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ বলেন, ‘আমি রংপুরের মানুষের দোয়ায় আজও বেঁচে আছি। এখন অপেক্ষায় আছি দুর্নীতির দায়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কবে কারাগারে যান।’

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে রংপুর নগরের একটি হোটেলে রংপুর বিভাগের আট জেলা ও রংপুর মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি-সম্পাদকদের সঙ্গে বৈঠককালে এরশাদ এসব কথা বলেন।

এইচ এম এরশাদ বলেন, দেশের মানুষ জাতীয় পার্টির ওপর আস্থা রাখতে পারছে না। এ আস্থা ফেরাতে হলে দলকে শক্তিশালী করতে হবে। দলীয় নেতাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, রংপুর জাতীয় পার্টির ঘাঁটি। সে ঘাঁটিতে ফাটল ধরেছে। তা এখন শক্ত হাতে তা ঠিক করতে হবে। কী পেলাম আর কী পেলাম না, সে চিন্তা না করে সব ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধভাবে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রংপুর বিভাগের সব কটি আসনেই জাতীয় পার্টির প্রার্থীকে জয়ী করতে হবে।
এরশাদ আগামী ২০ নভেম্বর রংপুর জিলা স্কুল মাঠে জাতীয় পার্টির রংপুর বিভাগীয় মহাসমাবেশের ঘোষণা দেন।

‘দেশে অভাব নেই, অভাবী মানুষ নেই’—সরকারের এমন দাবির সমালোচনা করে জাপা চেয়ারম্যান বলেন, অভাবী মানুষ যদি না-ই থাকবে তাহলে ১০ টাকা কেজি দরে চাল কাকে দেওয়া হচ্ছে?

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত এরশাদ বলেন, বিএনপির মাঠে নামার শক্তি নেই। ভবিষ্যতে নামতে পারবে কি না, আল্লাহ জানেন। দেশের মানুষ জাতীয় পার্টির দিকে তাকিয়ে আছে। মানুষের চাওয়া কাজে লাগাতে হবে। বিএনপি সরকারের আমলের নানা নির্যাতন ও ষড়যন্ত্রের কথা উল্লেখ করে এরশাদ বলেন, ‘আমি রংপুরের মানুষের দোয়ায় আজও বেঁচে আছি, আমি মরিনি। এখন আমি অপেক্ষায় আছি খালেদা জিয়া দুর্নীতির দায়ে কবে কারাগারে যান।’

বৈঠকে জেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক মোফাজ্জল হোসেন, সদস্যসচিব হোসেন মকবুল শাহরিয়ার, মহানগর আহ্বায়ক মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা, সদস্যসচিব এস এম ইয়াসির প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

prothom alo

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।