শিক্ষা মন্ত্রীর কাছে কৈফিয়ত চাইলেন ভিসি আরেফিন

এবার শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক মুখোমুখি অবস্থান নিয়েছেন। ‘নীলক্ষেত থেকে বই কিনে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্ন করা হয়’ শিক্ষামন্ত্রী নাহিদের এমন বক্তব্যের পর তার সুস্পষ্ট ব্যাখ্যা চেয়েছেন আরেফিন সিদ্দিক।

বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষায় পাসের হার কম হওয়ায় শিক্ষার মান নিয়ে প্রশ্ন তুলেন নুরুল ইলসাম নাহিদ। গত বুধবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘তারা নীলক্ষেত থেকে বেনামি বই কিনে ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্ন করছেন। ’

শিক্ষামন্ত্রী নরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, আমাদের ছেলে-মেয়েদের গুণগত মান বাড়ছে না যারা বলেন, তারা মোটেই সঠিক কথা বলেন না। মন্ত্রী বলেন ‘একজন শিক্ষক বলেছেন, তারা নীলক্ষেত থেকে অনেক ধরনের গান, জারি, নাচ, ছড়া, কবিতাসহ নানা ধরনের বই কিনেন। আর ওইসব বই থেকে ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্ন করেন। অথচ সেটা শিক্ষকরাও জানেন না। কেন দেন, এসব প্রশ্ন করার মানে হলো ফেল করানো। সেই হিসেবে এটা কোনো পাস ফেলের প্রশ্ন না, এটা নিয়ে বিভ্রান্তি হচ্ছে।

এদিকে, শুক্রবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার হল পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ঢাবি উপচার্য শিক্ষামন্ত্রীর কাছে তার বক্তব্যের সুসষ্ট ব্যাখ্যা দাবি করেন।

এসময় তিনি আরো বলেন, শিক্ষামন্ত্রীর এই বক্তব্যের সত্যতা নেই। তিনি কার কাছে বা কোন শিক্ষকের কাছে এমন অসত্য তথ্য শুনেছেন, তা স্পষ্ট করেননি। আমরা একজন শিক্ষার্থীর উচ্চশিক্ষা অর্জনের যোগ্যতা যাচাই করি। আমরা যে প্রশ্ন করি তা টেক্সবুক থেকে করা হয়।
ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্ন কোনো গাইড বইয়ের সঙ্গে যদি তা মিলে যায় তাহলে আমাদের কিছু করার নেই বলেও জানান অধ্যাপক আরেফিন সিদ্দিক।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।