কোনো কম্প্রোমাইজ করব না : ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দেশের হারানো গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে, মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার আদায়ে আমরা কোনো অবস্থাতেই কম্প্রোমাইজ করব না।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনী মিলনায়তনে ভাষা সৈনিক অলি আহাদের ৪র্থ মৃত্যুবার্ষিকী স্মরণে আয়োজিত সভায় সোমবার বিকেলে এ কথা বলেন ফখরুল। গণসংস্কৃতি দল সভাটির আয়োজন করে।

ফখরুল বলেন, ‘আমরা স্বাধীনতার জন্য যুদ্ধ করেছি, স্বাধীনতা নিয়ে এসেছি। গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করেছি গণতন্ত্র অর্জন করেছি। কিন্তু সেই গণতন্ত্র আজ হারিয়ে গেছে, লুট করে নিয়ে গেছে। সেই গণতন্ত্রকে আমরা ফিরিয়ে নিয়ে আসব। প্রয়োজন হলে জীবনের শেষ রক্ত পর্যন্ত আমরা দেব।’

বাংলাদেশের মানুষ নিঃস্ব জাতি হিসেবে গড়ে উঠছে উল্লেখ তিনি বলেন, ‘আজ দেশে যে রাজনীতি চলছে তা দেশকে সত্যিকার অর্থে নিঃস্ব জাতি হিসেবে গড়ে তুলছে। এ জাতি হতে কোনো ভালো কিছু আসছে না, বিবেক আসছে না। আজকে কোনোরকম জবাবদিহিতা ছাড়াই মানুষককে হত্যা করা হচ্ছে। যে কারণেই হোক! হয়ত সে ক্রিমিনাল, জঙ্গি বা খুনি আসামি হতে পারে। কিন্তু তাদের প্রত্যেকের সুষ্ঠু বিচার পাওয়ার অধিকার রয়েছে। কিন্তু সেটা নিঃশেষ করে দেওয়া হয়েছে।’

উন্নয়নের নামে সরকার দেশের মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করা হচ্ছে উল্লেখ করে বিএনপির এ নেতা বলেন, ‘উন্নয়নের যে ঢাক ঢোল পেটানো হচ্ছে। যে প্রবৃদ্ধি দেখানো হচ্ছে, সে উন্নয়ন কী হচ্ছে? দেশে আজ দেখা যাচ্ছে শিক্ষিত যুবক ভ্যান গাড়ি চালাচ্ছে, ফুটপাতে মানুষ না খেয়ে ঘুমাচ্ছে, তাহলে উন্নয়ন কার হচ্ছে। এটাই কি উন্নয়ন? আসলে উন্নয়নের নামে দেশের মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করছে সরকার।’

গণসংস্কৃতি দলের সভাপতি এস. আল-মামুনের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন বিশেষ অতিথি ভাষা সৈনিক রওশন আরা বাচ্চু, অধ্যাপক আব্দুল গফুর, বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা নাজমুল হক নান্নু, ঢাবি সাবেক উপ-উপাচার্য  আ ফ ম ইউসুফ হায়দার, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সহ সম্পাদক কাদের গণি, ঢাকা জেলা বিএনপির সভাপতি দেওয়ান মো. সালাউদ্দিন প্রমুখ।

১ টি মন্তব্য:

  • নভেম্বর 18, 2016 at 9:25 অপরাহ্ন
    Permalink

    দেশে আজ দেখা যাচ্ছে শিক্ষিত যুবক ভ্যান গাড়ি চালাচ্ছে, ফুটপাতে মানুষ না খেয়ে ঘুমাচ্ছে, তাহলে উন্নয়ন কার হচ্ছে। এটাই কি উন্নয়ন? আসলে উন্নয়নের নামে দেশের মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করছে সরকার।’It is real talk.

    Reply

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।