পুলিশের তদন্ত প্রতিবেদন : নাসিরনগরে হামলা সাম্প্রদায়িক ন​য় , রাজনৈতিক !

রাজনৈতিক দ্বন্দ্বের কারণে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘর ও মন্দিরে হামলা চালানো হয়েছে বলে উঠে এসেছে পুলিশের এক তদন্ত প্রতিবেদনে। এতে বলা হয়েছে, স্থানীয় রাজনৈতিক নেতাদের দ্বন্দ্বের সুযোগে ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিল করতেই পরিকল্পিতভাবে ওই হামলা চালানো হয়।

সোমবার চট্টগ্রাম রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি মো. শাখাওয়াত হোসেন প্রতিবেদনের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশের গঠিত ৪ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটির প্রধান চট্টগ্রামের এই অতিরিক্ত ডিআইজি। পুলিশ সদর দফতরে ওই তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে ঢাকা আসেন তিনি; সোমবার বিকেলে প্রতিবেদন জমা দেন।

তিনি বলেন, হামলায় অংশগ্রহণকারীরা পরিকল্পনা করেই অংশ নিয়েছে। যারা হামলাকারী ও ইন্ধনদাতা তাদের সবাইকে চিহ্নিত করা হবে। এ ঘটনায় হওয়া পাঁচটি মামলার তদন্ত কর্মকর্তাদের কিছু গাইডলাইন দেওয়া হয়েছে।

শাখাওয়াত হোসেন জানান, ওই হামলার ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার জন্য দুই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতেও বলেছে তদন্ত কমিটি। নাসিরনগরে এত বড় হামলা হবে সে ব্যাপারে ওই দুই পুলিশ কর্মকর্তা আগাম কিছুই অনুধাবন করতে পারেননি। হামলা ঠেকানোর ব্যবস্থা ও পরিকল্পনাও প্রয়োজনীয় ছিল না। তাদের দুর্বলতা ছিল; এজন্য তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ৩০ অক্টোবর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এক যুবকের বিরুদ্ধে পবিত্র কাবা শরীফ অবমাননার অভিযোগ এনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দু সম্প্রদায়ের ধর্মীয় উপাসনালয় ও ঘর-বাড়িতে তাণ্ডব চালায় স্থানীয় দুর্বৃত্তরা।

jagonews24

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।