ইহুদিবাদী ইসরাইলি মন্ত্রিসভা আল-আকসা মসজিদসহ পশ্চিম তীরের সব মসজিদের মাইকে আজান বন্ধের প্রস্তাব পাস!

ইহুদিবাদী ইসরাইলি মন্ত্রিসভা আল-আকসা মসজিদসহ জর্দান নদীর পশ্চিম তীরের সব মসজিদের মাইকে আজান প্রচার নিষিদ্ধ করে প্রস্তাব অনুমোদন করেছে। এর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে ইরান।

তেহরান বলেছে, বাইতুল মোকাদ্দাসের ইসলামি পরিচিতি মুছে ফেলার ইহুদিবাদী প্রচেষ্টা রুখে দিতে মুসলিম দেশগুলোসহ বিশ্ব সমাজের এগিয়ে আসা উচিত।

ইসরাইলি মন্ত্রিসভায় অনুমোদিত প্রস্তাবের প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বাহরাম কাসেমি বুধবার বলেন, গত ছয় দশকেরও বেশি সময় ধরে ইহুদিবাদীরা ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে যেসব মানবতা বিরোধী, বর্ণবাদী, মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী ও নিপীড়নমূলক তৎপরতা চালিয়ে এসেছে এটি তারই ধারাবাহিকতা মাত্র।

তিনি বলেন, ফিলিস্তিনি জনগণের জীবনযাত্রাকে তাদেরই পূর্বপুরুষদের দেশে দুর্বিষহ করে তোলার পাশাপাশি মুসলমানদের প্রথম ক্বেবলা অধ্যুষিত ঐতিহাসিক শহর বাইতুল মোকাদ্দাসের ইসলামি পরিচিতি মুছে ফেলা হচ্ছে ইসরাইলি প্রস্তাবের মূল লক্ষ্য। এ ধরনের মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী ও অবমাননাকর পদক্ষেপের বিরুদ্ধে সরব হতে তিনি আন্তর্জাতিক সমাজ বিশেষ করে মুসলিম দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানান। কাসেমি বলেন, বাইতুল মোকাদ্দাস বিরোধী কোনো পদক্ষেপ নীরবে সহ্য করা কোনো মুসলিম দেশের উচিত নয়।

শব্দ দূষণের অভিযোগ তুলে বুধবার ইসরাইলি মন্ত্রিসভা বাইতুল মোকাদ্দাসের মসজিদগুলো থেকে মাইকে আজান সম্প্রচার নিষিদ্ধ করে একটি প্রস্তাব অনুমোদন করেছে। শিগগিরই এই প্রস্তাব ইসরাইলি পার্লামেন্ট নেসেটে পাঠানো হবে বলে ঘোষণা দেয়া হয়েছে। নেসেটে অনুমোদিত হলে এটি আইনে পরিণত হবে এবং এরপর ফিলিস্তিনি মসজিদগুলো থেকে আর মাইকে আজান দেয়া যাবে না।#

পার্সটুডে

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।