ঢাকা টেস্টে চালকের আসনে বাংলাদেশ

একেবারে দিনের শেষ বলে আউট হলেন মাহমুদউল্লাহ। কে জানে, মাথার ভেতর কী ঘুরপাক খাচ্ছিল তার। প্যাভিলিয়নের পথে যেখানে যেতে পারতেন নামের পাশে ‘অপরাজিত’ কথাটা লিখে, সেখানে ফিরলেন রাজ্যের হতাশা মাথায় চেপে।

সোনায় রাঙানো একটা দিনের শেষ দৃশ্যটা বিবর্ণ হলেও দিনটা বাংলাদেশের। তা মাহমুদউল্লাহর আউট কিংবা যতই শেষ দিকে ৯৯ রানের জুটিতে পিছিয়ে পড়া ইংল্যান্ড লিড নিয়ে প্রথম ইনিংস শেষ করুক না কেন। বাংলাদেশের টেস্ট ইতিহাসে এমন দিন কবে এসেছে! পরাশক্তি ইংল্যান্ডকে ২৪৪ রানে গুটিয়ে দিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে দ্বিতীয় দিন শেষ করেছে ১২৮ রানের লিড নিয়ে। ৩ উইকেটে ১৫২ রানে দিন শেষ করা স্বাগতিকরা লিডটা কত দূর নিয়ে যেতে পারেন সেটাই এখন দেখার।

অভিষেকে আলো ছড়ানো মেহেদী হাসান মিরাজ আবারও করলেন বাজিমাত। এই স্পিনার আবারও ৬ উইকেট শিকার করলে ইংলিশরা গুটিয়ে যায় ২৪৪ রানে। তাতে ২৪ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে বাংলাদেশ। শুরুটাও হয়েছিল দারুণ। আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি পাওয়া তামিম ইকবাল ইংল্যান্ডের বোলারদের ওপর চড়াও হয়ে ব্যাট করছিলেন ওয়ানডে ধাচে, তাতে ইঙ্গিত ছিল আরও একটি বড় ইনিংসের। কিন্তু হলো না, ৪০ রান করে এই ওপেনার আউট হয়ে যান জাফর আনসারির বলে। অ্যালিস্টার কুক তালুবন্দি করলে এই বোলার পান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের প্রথম উইকেট। তামিমের ওই ধাক্কা সামলানোর আগেই আবার আঘাত ইংলিশদের। তার পর পরই যে ফিরে গেলেন মমিনুল হক! বেন স্টোকসের বলে ১ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরেছেন মমিনুল।

দ্রুত ২ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় বাংলাদেশ। ইমরুল কায়েস ও মাহমুদউল্লাহ জুটি গড়ে সেই চাপ কাটিয়ে স্কোর বাড়িয়ে নিচ্ছিলেন স্বাগতিকদের। ইমরুল পূরণ করেছেন তার টেস্ট ক্যারিয়ারের চতুর্থ হাফসেঞ্চুরি। মাহমুদউল্লাহকে সঙ্গে নিয়ে এই ওপেনার তৃতীয় উইকেটে গড়া জুটির ওপর ভর দিয়ে বাংলাদেশের লিড ছাড়ায় ১০০। মাহমুদউল্লাহ হাঁটছিলেন হাফসেঞ্চুরির পথে। দ্বিতীয় দিনে না পারলেও তৃতীয় দিনের শুরুতে সেটা পূরণ করবেন, এটাই ছিল সবার প্রত্যাশা। দিনের শেষ অংশ বলে উইকেটে টিকে থাকাটাই ছিল মুখ্য বিষয়। অথচ দলের অভিজ্ঞ একজন ব্যাটসম্যান হয়েও করলেন শিশুসুলভ কাজ! শেষ মুহূর্তে খেলতে গেলেন তিনি ‘বিগ’ শট; ফল যা হওয়ার তাই, লাইনে থাকা আনসারির বলটা সরাসরি আঘাত করলো স্ট্যাম্পে। মিরপুরের উইকেটে ছাপিয়ে ওই আঘাতটা লাগলো কোটি ক্রিকেট প্রেমির মনেও। তার ৪৭ রানের ইনিংস থামলে ভাঙে ইমরুলের সঙ্গে গড়া ৮৬ রানের জুটি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।