বদলে গেছে বাংলাদেশ – অ্যালিস্টার কুক

ইংল্যান্ডের অধিনায়ক হিসেবে ২০১০ সালে প্রথমবার বাংলাদেশ সফরে আসেন অ্যালিস্টার কুক। তার নেতৃত্বে সেবার বাংলাদেশের বিপক্ষে আধিপত্য দেখিয়েই ২-০ তে টেস্ট সিরিজ জিতে নিয়েছিলো ইংলিশরা।

ওই সিরিজে সফরকারীদের বিপক্ষে তেমন কোনো প্রতিরোধই গড়তে পারেনি লাল-সবুজের বাংলাদেশ।

বরং মাথা নিচু করে মেনে নিতে হয়েছিলো ইংলিশদের দাপট। কিন্তু ৬ বছরের ব্যবধানে এবার সফরে এসে এক ভিন্ন বাংলাদেশকে দেখলেন এই ইংলিশ দলপতি। দেখলেন অনেক বদলে গেছে বাংলাদেশ।

মিরপুরে বাংলাদেশের বিপক্ষে এ টেস্টের আগে আরও ৯টি ম্যাচ খেলেছে ইংল্যান্ড। যেখানে সবক’টিতে ছিলো তাদের জয়। কিন্তু দশম ম্যাচে এসে হারের তিক্ত স্বাদ পেলেন তারা।

সে যেন তেন হার নয়, একেবারে ১০৮ রানের বড় ব্যবধানে। তাও আবার দুই দিন বাকি থাকতেই। তাই বেশ বিস্মিত ইংলিশ দলপতি।

রোববার (৩০ অক্টোবর) ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই অকপটে বললেনও তিনি।
‘বিগত বছরগুলোর তুলনায় বাংলাদেশ অনেক বদলেছে। আমি এটা দেখে অবাক হয়েছি যে, এই ওরা আমাদের হারাবে। এ সিদ্ধান্ত তারা আগেই নিতে পেরেছে।’

তিনি বলেন, দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশের দেওয়া ২৭৩ রানের লক্ষ্যটা খুব বেশি কঠিন ছিলো না। তবে শেষ পর্যন্ত কন্ডিশনই তাদের জন্য কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে।

‘আমরা ভেবেছিলাম ২৭০ রান সহজেই টপকানো যাবে। কিন্তু এই কিন্ডিশনে আমরা একেবারেই অনভিজ্ঞ। যেখানে ওরা আমাদের চাইতে অনেক বেশি অভিজ্ঞ।’

কুকের ভাষ্য, ‘আমি জানি, যে ছেলেটা ১৯টি উইকেট পেয়েছে। সে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ততোটা অভিজ্ঞ নয়। কিন্তু সে এই কন্ডিশনে ভীষণ অভিজ্ঞ।’

সঙ্গতই বলেছেন কুক। কেননা টাইগার অফ স্পিনার মেহেদি হাসান মিরাজের রেকর্ডেই ভর করে প্রথমবারের মতো ইংল্যান্ডকে হারিয়ে টেস্ট সিরিজে ১-১ সমতা এনেছে স্বাগতিক বাংলাদেশ।

আর ঐতিহাসিক এ জয়ে ক্রিকেটে সব সময়ের শক্তিশালী দলটির বিপক্ষে প্রথমবারের মতো টেস্ট সিরিজ ড্র’য়ের গৌরবও অর্জন করেছে টাইগাররা।

banglanews24

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।