উদ্বোধনী ম্যাচে মাশরাফির প্রতিপক্ষ ড্যারেন স্যামি

শুক্রবার থেকে মাঠে গড়াচ্ছে চার-ছক্কার ধুমধাড়াক্কা ক্রিকেট যুদ্ধ বিপিএল। এদিন বর্তমান চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস ও নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজি রাজশাহী কিংসের ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠছে বিপিএল চতুর্থ আসরের। টুর্নামেন্ট যখন টি-টোয়েন্টি, তখন লড়াই যে কতটা জমজমাট হবে এটা টের পেয়েছে ক্রিকেটপ্রেমীরা। দেশি-বিদেশি খেলোয়াড় নিয়ে তারকাখচিত দল গড়েছে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো।উদ্বোধনী ম্যাচটি শুক্রবার হওয়াতে গ্যালারিতে উপচে ভড়া দর্শক থাকবে বলেই প্রত্যাশা করা হচ্ছে। দুপুর আড়াইটায় মুখোমুখি হবে মাশরাফি বিন মর্তুজার কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ও ড্যারেন স্যামির রাজশাহী কিংস। এবং সন্ধ্যা ৭টায় মুখোমুখি হবে খুলনা টাইটানস ও রংপুর রাইডার্স।

বরাবরের মতো দেশে বিপিএলের ম্যাচগুলি সরাসরি সম্প্রচার করবে চ্যানেল নাইন। সুখবর আরও আছে, বিশ্বের বেশিরভাগ অঞ্চলেই এবার দেখা যাবে বিপিএলের ম্যাচগুলো। সনি ইএসপিএন, প্রিমিয়ার স্পোর্টস, ইএসপিএন, জিও টেলিভিশনের চ্যানেলগুলো বিপিএলের খেলা ছড়িয়ে দেবে বিশ্বব্যাপী। সনি ইএসপিএন এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল, ইএসপিএন যুক্তরাষ্ট্রে, প্রিমিয়ার স্পোর্টস কানাডায় ও জিও টিভি পাকিস্তানে খেলা দেখাবে। সনি ইএসপিএনের কল্যাণে এবার ভারতেও সরাসরি সম্প্রচারিত হবে এই ধুমধাড়াক্কা ক্রিকেটের আসর।.

বিপিএলে এবার ধারাভাষ্যকার হিসেবে দেখা যাবে ড্যানি মরিসন, সিকান্দার বখত, আতাহার আলী খান ও শামীম আশরাফ চৌধুরীকে। এছাড়া সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করবেন শিনা চৌহান ও আমব্রিন।

জাতীয় দলের সফল অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার কাঁধে দ্বিতীয়বারের মতো কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের দায়িত্ব। ব্যাটিংয়ে স্থানীয় ইমরুল কায়েস, লিটন দাস, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, নাজমুল হোসেন শান্ত ও আল আমিন জুনিয়রের ওপর ভরসা রাখতে হচ্ছে কুমিল্লাকে। প্রতিপক্ষের চোখ এই চার তারকার দিকে। গতবারের টুর্নামেন্ট সেরা আসহার জাইদিকে ধরে রেখেছে কুমিল্লা। তবে এবার তাঁদের সবচেয়ে বড় অস্ত্র হয়ে উঠতে পারে আফগানিস্তানের লেগ স্পিনার রশিদ খান। আর পেস বোলিংয়ে মাশরাফির সঙ্গী সোহেল তানভীর ও নুয়ান কুলাসেকারা।

মাশরাফি অবশ্য নিজেদের প্রথম ম্যাচের দিকে মনোযোগী। এখনই চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লড়াইয়ে নামতে চান না তিনি, ‘এতদূর ভাবার তো কিছু নেই। টুর্নামেন্ট শুরুই হতে পারলো না, এতদূর চিন্তা করার সুযোগ নেই। শুরু থেকেই আমাদের লক্ষ্য থাকবে ভালো ক্রিকেট খেলা। এজন্য প্রথম ম্যাচটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। যদি ভালো শুরু পাই, তাহলে মোমেন্টামটা সঙ্গে থাকলে সামনের ম্যাচগুলো খেলতে কিছুটা হলেও সহজ হবে।’

যদিও টিম কম্বিনেশন কেমন হবে এটা নিয়ে ভীষণ চিন্তিত মাশরাফি। তার ভাবনায় প্রথম দুই এক ম্যাচের পর কম্বিনেশন সাজানো সহজ হয়ে যাবে, ‘আমরা আমাদের যথাসাধ্য চেষ্টা করেছি সেরা কম্বিনেশন দাঁড় করাতে। এই ধরনের টুর্নামেন্টে প্রথম ম্যাচ থেকেই সঠিক কম্বিনেশন দাঁড় করানোটা সহজ কাজ নয়। সবাই প্রথম ২-১ ম্যাচ লড়াই করবে, এরপর কম্বিনেশনটা দাঁড় করাতে পারবে। বর্তমান ফর্মে থাকা বেশ কিছু খেলোয়াড় আছে আমাদের। আমরা চাই তারা মাঠে খেলুক। টি-টোয়েন্টিতে বর্তমান ফর্ম খুব গুরুত্বপূর্ণ।’

আসরের নতুন দল রাজশাহী কিংসও শক্তিশালী দল নিয়ে প্রস্তুত। এ দলের দুটি নাম সারা দেশেই পরিচিত। প্রথমজন টি-টোয়েন্টি মেজাজের সাব্বির রহমান আর অপরজন ইংল্যান্ডকে টেস্ট ক্রিকেটে হারানোর নায়ক নতুন সেনসেশন মেহেদি হাসান মিরাজ। দলটিতে আরও আছেন ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার ড্যারেন স্যামি, পাক বোলার মোহাম্মদ সামি আর লংকান তারকা উপুল থারাঙ্গা। টি টোয়েন্টি ক্রিকেট বিশ্বকাপের শিরোপা জয়ী ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান অধিনায়ক ড্যারেন স্যামির নেতৃত্বেই আজ মাঠে নামছে রাজশাহী কিংস।

তবে মাঠের নেতৃত্বে ড্যারেন স্যামি এগিয়ে রাখলেন মাশরাফিকে। তারপরও মাঠে প্রাপ্ত সুযোগগুলো কাজে লাগাতে চান রাজশাহী কিংসের এই অধিনায়ক, ‘মর্তুজা খুব ভালো অধিনায়ক, খুব ভালো মানুষ। ওদের দলটাও দারুণ। এজন্যই তো বর্তমান চ্যাম্পিয়ন। আমরা এই টুর্নামেন্টে নতুন। তবে আমরাও খুব আত্মবিশ্বাসী। মাঠে নেমে আমরা যদি পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে পারি, আমরাও আশাবাদী। টি-টোয়েন্টিতে কোনও একজন ক্রিকেটারই ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারে। মোমেন্টাম যদি আমাদের সঙ্গে থাকে এবং আমরা বয়ে নিতে পারি, আমাদের পক্ষে ভালো কিছু করা সম্ভব।’

এছাড়া দিনের অপর ম্যাচে মুখোমুখি হবে খুলনা টাইটানস ও রংপুর রাইডার্স। ম্যাচটি শুরু হবে সন্ধ্যা ৭টায়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।