মাশরাফির প্রশংসায় স্যামি

একজন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট বিশ্বকাপের দুইবার বিশ্বচ্যাম্পিয়ন দলের অধিনায়ক, আরেকজন বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) তিন আসরের তিনটিতেই বিজয়ী দলের অধিনায়ক। গুরুত্বের বিচারে বিপিএলের চেয়ে বিশ্বকাপ কয়েক সহস্র গুণ মূল্যবান। তবে নেতৃত্ব দু’জনই দিয়েছেন সামনে থেকে। দলের খেলোয়াড়দের উজ্জীবিত করতে তুলনাহীন দু’জনই।

তাদের একজন প্রশংসা বাণে ভাসালেন আরেকজনকে। বাংলাদেশ ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার উচ্ছ্বসিত প্রশংসাই করেন সাবেক ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও বর্তমান রাজশাহী কিংসের অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি।

বিপিএলের এবারের আসরে নবাগত দল রাজশাহী কিংসের নেতৃত্ব দেওয়া হয় স্যামির হাতে। প্রথম দিনেই চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লার মোকাবেলা করছে স্যামির দল। প্রতিপক্ষের শক্তিমত্তা সম্পর্কে ভালোই জানেন তিনি। বিশেষ করে অধিনায়ক মাশরাফি যে সাধারণ দল নিয়ে লড়াই করতে জানেন, তা ভালো করেই জানা আছে তার।

বৃহস্পতিবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দলের হয়ে অনুশীলন করতে আসে রাজশাহী। অনুশীলন শেষে মাশরাফির প্রশংসা করে স্যামি বলেন, ‘মর্তুজা খুব ভালো অধিনায়ক, খুব ভালো মানুষ। ওদের দলটাও দারুণ। এজন্যই তো বর্তমান চ্যাম্পিয়ন।’

বর্তমান চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা কঠিন প্রতিপক্ষ হলেও নিজেদের ওপর আস্থা রয়েছে স্যামির, ‘আমরা এই টুর্নামেন্টে নতুন। তবে আমরাও খুব আত্মবিশ্বাসী। মাঠে নেমে আমরা যদি পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে পারি, আমরাও আশাবাদী। টি-টোয়েন্টিতে কোনো একজন ক্রিকেটারই ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারে। মোমেন্টাম যদি আমাদের সঙ্গে থাকে এবং আমরা বয়ে নিতে পারি, আমাদের পক্ষে ভালো কিছু করা সম্ভব।’

বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেট সম্পর্কে খুব ভালো জানা নেই স্যামির। যদিও এর আগে বিপিএলে এসেছিলেন তিনি। তাই এমন অচেনা ক্রিকেটারদের নেতৃত্ব দিতে কোনো সমস্যা হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘চ্যালেঞ্জিং অবশ্যই। তবে দিন শেষে খেলাটি তো ক্রিকেটই। বিশ্বজুড়ে খেলার এবং নেতৃত্ব দেওয়ার যে অভিজ্ঞতা আমার, এখানে তার ব্যতিক্রম কিছু নয়। আমরা চেষ্টা করবো এমন একটা দলীয় সংস্কৃতি গড়ে তুলতে যেখানে থাকবে একতা, সবাই উপভোগ করবে এবং যা সাফল্য এনে দেবে।’

jagonews24

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।